ফকিরকে হুমকি দিল মিশুক চোর!

বিভাস প্রতিবেদক:
কুড়িগ্রাম সদরের একজন দরিদ্র ব্যক্তির মিশুক রিকশা চুরির বিষয়ে ফকিরের দারস্থ হয়। এ খবর পেয়ে চোর চুরির কোন তথ্য প্রকাশ না করার জন্য ফকিরকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে। এ ঘটনায় কুড়িগ্রাম সদর থানায় একটি জিডি করা হলেও পুলিশ এখনও মিশুক উদ্ধার ও চোরকে পাকড়াও করতে পারেনি।
জানা গেছে, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার বেলগাছা ইউনিয়নের পশ্চিম কল্যাণ গ্রামের হতদরিদ্র আলম মিয়া কুড়িগ্রামের শাপলা মোড়ের একটি দোকান থেকে ৮৫ হাজার টাকায় কিস্তিতে একটি মিশুক কেনেন। এখনও উক্ত দোকানে তার ২৮ হাজার টাকার কিস্তি বাকি রয়েছে। এই মিশুকই তাঁর পরিবারের একমাত্র আয়ের উৎস। মিশুক চালিয়ে যা আয় হয় তা দিয়ে পঙ্গু পিতার চিকিৎসার ব্যয়, সন্তানের লেখাপড়া, পারিবারিক ভরণ পোষণ ব্যয় ও কিস্তির টাকা পরিশোধ করে থাকেন। গত ৯ জুলাই তার জীবিকা নির্বাহের একমাত্র বাহন মিশুক রিকশাটি চুরি হয়ে যায়। এ ব্যাপারে আত্মারাম ফুলবাবু নামের এক ফকিরের কাছে যান চোর সনাক্ত করে মিশুক উদ্ধারের জন্য। ফকির ঘটনা স্থলে এসে সবকিছু দেখে তুলারাশিসহ রাতে আসবে বলে জানায়। সন্ধ্যায় চোর ফকিরকে মোবাইল করে কিডন্যাপ করার হুমকি দেয়। এরপর ফকির ফুলবাবু জীবনের ভয়ে মিশুক উদ্ধারে অপারগতা প্রকাশ করে। দিশেহারা আলম মিয়া অবশেষে ওই দিন রাতে কুড়িগ্রাম সদর থানায় হুমকিদাতার মোবাইল নম্বর উল্লেখসহ অভিযোগ দায়ের করেন। পরদিন পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আসামাত্র আবারও একই নম্বর থেকে ফকির ফুলবাবুকে হুমকি প্রদান করে যাতে তিনি উক্ত নম্বরটি পুলিশকে না দেন।
কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি খান মো: শাহরিয়ার জানান, মিশুক রিকশাটি উদ্ধারের ব্যাপারে প্রযুক্তির সহায়তা নেয়া হচ্ছে। আশা করা যায় চোর সনাক্ত ও রিকশাটি উদ্ধার হবে।

Facebook Comments
Share
  •  
  •  
  •  
  •  
error: Encrypted Content!